১৮, আষাঢ়, ১৪২৭, Thursday, 02 July, 2020 12:00:32

সংবাদ শিরোনাম/ News Headline:

আসলাম তালুকদার থেকে মান্না: ১২তম মৃত্যুবার্ষিকী

অনলাইন ডেস্ক আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ১৮ ফেব্রুয়ারী , ২০২০, ১৩:১৯ অপরাহ্ন

চিত্রনায়ক মান্না নেই বারো বছর হয়ে গেলো। তবে মৃত্যুর পরও ভক্তদের হৃদয়ে তিনি আজও বেঁচে আছেন। আজ চলচ্চিত্রের এই  মহাতারকার ১২ তম মৃত্যুবার্ষিকী। ২০০৮ সালের এই দিনে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে পৃথিবীর মায়া ত্যাগ করেন তিনি। টাঙ্গাইলের কালিহাতীতে জন্ম নেওয়া এই নায়কের আসল নাম এস এম আসলাম তালুকদার।

ছোটবেলা  থেকে সিনেমার প্রতি তার ছিল প্রচন্ড ঝোঁক। কলেজে পড়ার সময় প্রচুর সিনেমা দেখতেন। টাঙ্গাইলের এস এম আসলাম তালুকদার নামের  সেই কিশোর হয়তো তখনো জানতেন না যে তিনিই একদিন হয়ে উঠবেন ঢাকাই চলচ্চিত্রের শীর্ষ নায়ক।

নায়ক রাজ্জাকের সিনেমা হলে তো কথাই নেই! স্বপ্ন দেখতেন তিনিও একদিন অভিনয় করবেন। অনেকের ইচ্ছে থাকে ডাক্তার, ইঞ্জিনিয়ার হওয়ার; কিন্তু তার ইচ্ছে ছিল নায়ক হওয়ার। একদিন বলাকায় সিনেমা দেখতে গিয়ে চোখে পড়ে ‘নতুন মুখের সন্ধানে’ বিজ্ঞাপন। তারপর টিভি আর পত্রিকায় দেখে বন্ধুদের সঙ্গে পরামর্শ করে তিনি ইন্টারভিউ দেন।

সুযোগও পেয়ে যান। ১৯৮৪ সালে ‘নতুন মুখের সন্ধানে’ কার্যক্রমের মাধ্যমে চলচ্চিত্র অঙ্গনে পা রাখেন আসলাম তালুকদার। এ কার্যক্রমে সুযোগ পেয়েই কিন্তু আসলাম থেকে নায়ক মান্না হতে পারেননি তিনি। এর জন্য অনেক ত্যাগ, কষ্ট স্বীকার করতে হয়েছে তাকে। এফডিসির অফিস পাড়ায় ঘোরাঘুরি আর নিয়মিত পরিচালকদের কাছে ধরনা দিতে হতো। যে রাজ্জাককে দেখে চলচ্চিত্রে অভিনয়ের স্বপ্ন দেখার শুরু, সেই রাজ্জাকই এক সময় তাকে সুযোগ করে দেন চলচ্চিত্রে অভিনয়ের। ১৯৮৬ সালে ‘নায়করাজ’ রাজ্জাকের এক বন্ধুর প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান থেকে নির্মিত ‘তওবা’ সিনেমায় অভিনয়ের সুযোগ ঘটে মান্নার। আর এভাবেই শুরু হয় নায়ক তার চলচ্চিত্র জীবনের যাত্রা।

অভিনয়, সংলাপ বলার ধরন দিয়ে নিজস্ব একটা স্টাইল দাঁড় করিয়েছিলেন তিনি। তার অভিনীত এমন কিছু ছবি আছে যার জন্য তিনি চিরদিনের জন্য দর্শকের মনে জায়গা করে নিয়েছেন। একটা সময় ছিল, যখন ছবিতে শুধু মান্না আছেন- এ কারণেই দর্শক হলে ছুটে গেছেন, তার কারণেই ছবি ব্যবসাসফল হয়েছে। রাজনৈতিক প্রেক্ষাপটনির্ভর ছবিতেও মান্না ছিলেন অনবদ্য।

Share Social Media

Comments
//